কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট মার্কেটের সেলুনে মিললো যুবকের বস্তাবন্দি ম’রদেহ

কুমিল্লায় সেলুন দোকান থেকে এক যুবকের বস্তাবন্দি লা’শ উদ্ধার করা হয়েছে। ওই যুবককে গলা কেটে হ’ত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। শুক্রবার কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট সেনামিলনায়তন মার্কেটের লক্ষ্মণ হেয়ার কাটিং থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। হ’ত্যাকাণ্ডের শিকার দেলোয়ার হোসেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলের জাহের আলীর ছেলে।

ঘটনার পর থেকে সেলুনের মালিক লক্ষ্মণ পলাতক রয়েছেন। তিনি কুমিল্লার আদর্শ সদর উপজেলার আমতলী এলাকার মৃত নিখিল চন্দ্র শীলের ছেলে। তার মোবাইল নম্বরও বন্ধ রয়েছে।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ময়নামতি এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন দেলোয়ার। পেশায় ভাঙারি মালামালের ব্যবসায়ী তিনি। বৃহস্পতিবার রাতে বাড়িতে ফিরতে দেরি হওয়ায় স্ত্রী মোবাইল নম্বরে কল দিলে জানান লক্ষ্মণের সেলুন দোকানে আছেন। রাত ১টায় মোবাইল নম্বরে কল দিয়ে বন্ধ পান স্ত্রী।

শুক্রবার সকাল পর্যন্ত তার সন্ধান না পেয়ে কোতোয়ালি মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। পরবর্তী সময়ে পরিবারের সদস্যদের সন্দেহ হলে দোকানের তালা ভেঙে বস্তাবন্দি অবস্থায় দেলোয়ারের লা’শ দেখতে পান। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে সিআইডি, পিবিআইসহ পুলিশের একাধিক টিম। তারা হ’ত্যাকাণ্ডের আলামত সংগ্রহ করে।

কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি আনোয়ারুল আজিম বলেন, সেলুনের ভেতরে কু’পিয়ে হ’ত্যার পর লা’শ বস্তাবন্দি করে রাখা হয়। নি’হতের মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের আ’ঘাতের চিহ্ন রয়েছে। হ’ত্যাকাণ্ডের আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। তবে কে বা কারা হ’ত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। সেলুন মালিক পলাতক।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  

ফেসবুকে আমরাঃ

error: আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ !