কুমিল্লা দেবিদ্বারে নৌকা প্রতিকের ভরাডুবি

সপ্তম ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনেও কুমিল্লায় নৌকা প্রতিকের প্রার্থীরা হার এড়াতে পারে নি। স্বতন্ত্র প্রতিকের প্রার্থীদের কাছে গত কয়েক ধাপের ধারাবাহিকতায় আবারো হেরেছে নৌকা। দেবীদ্বার উপজেলার ১৪ ইউনিয়ন পরিষদে গতকালের নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতিকে জয় লাভ করেছেন ৪ জন প্রার্থী। অন্যদিকে স্বতন্ত্র জয়লাভ করেছে ৯ জন প্রার্থী।

দেবিদ্বারে চারটি ইউপিতে নৌকার বিজয়ীরা হলেন, গুনাইঘর উত্তর ইউনিয়নে মোহাম্মদ মোকবল হোসেন মুকুল (নৌকা), গুনাইঘর দক্ষিণ ইউনিয়নে মো. হুমায়ুন কবির (নৌকা), সুলতানপুর ইউনিয়নে অধ্যক্ষ হুমায়ুন কবির (নৌকা), বরকামতা ইউনিয়নে আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম (নৌকা)।

অপরদিকে, ৯টি আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থীরা হলো, বড়শালঘর ইউপিতে আবদুল আউয়াল (আনারস), রসুলপুর ইউপিতে মো. শাহজাহান (ঘোড়া), সুবিল ইউপিতে গোলাম সারোয়ার মুকুল ভূইয়া (চশমা), ফতেহাবাদ ইউপিতে মোহাম্মদ কামরুজ্জামান মাসুদ (দোয়াত কলম), এলাহাবাদ ইউপিতে মো. নুরুল আমীন (চশমা), জাফরগঞ্জ ইউপিতে মো. জাহিদুল আলম (আনারস) রাজামেহার ইউপিতে মো. জসিম উদ্দিন সরকার (চশমা), ধামতী ইউপিতে মো. মহিউদ্দিন মিঠু (আনারস), মোহনপুর ইউপিতে মো. ময়নাল হোসেন (মোটর সাইকেল) এবং ইউছুফপুর ইউপিতে (স্বতন্ত্র) মো. জাকারিয়া (আনারস)। উল্লেখ্য, উপজেলার ১৫টি ইউনিয়নের মধ্যে সোমবার ১৪টি ইউনিয়নের ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়েছে। একটি ইউনিয়নে নৌকা মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. নুরুজ্জামান ভূঁইয়া মুকুল মারা যাওয়ায় ওই ইউনিয়নে ভোট গ্রহন বন্ধ রয়েছে।

এদিকে কুমিল্লায় দুই উপজেলার ইউপি নির্বাচনেই শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণ হয়েছে। দেবিদ্বার ও বুড়িচং উপজেলার ২৩টি ইউনিয়নে সকাল ৮ টায় শুরু ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে বিকাল ৪টায় শেষ হয়। গতকাল রাতে দেবিদ্বার উপজেলার ভাণী ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মৃত্যুবরন করায়, সেই ইউনিয়নের ভোটগ্রহন স্থগিত করা হয়। এদিকে আজ সকাল থেকেই নির্বাচনের প্রতিটি কেন্দ্রে ভোটারদের ছিলো উপচে পরা ভিড়। কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটলেও বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে অনিয়মের অভিযোগে বেশ কয়েকজনকে আটক, জেল ও জরিমানা করেন ম্যাজিষ্ট্রেটগণ। ভোট গণনা শেষে রাতে ফল ঘোষণা করা হয়।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  

ফেসবুকে আমরাঃ